Home / স্বাস্থ্য পরামর্শ / এলাচের উপকারিতা ও গুনাগুন গুলো জেনে নিন

এলাচের উপকারিতা ও গুনাগুন গুলো জেনে নিন

সুগন্ধি মশলা হিসেবে পরিচিত এলাচ। এটি বিশ্বের একটি দামী মশলা হিসেবেও পরিচিত। আমাদের নিত্যদিনের নানা মুখরোচক রান্নায় এর ব্যবহার হয়ে থাকে। এলাচে রয়েছে ভিটামিন ‘এ’, ‘বি’ ও ‘সি’। প্রচুর প্রোটিন, স্বল্প মাত্রায় ফ্যাট, ভোলাটাইল অয়েল প্রভৃতি। আরো আছে ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম ও ফসফরাস।

পেটফাঁপা ভাব, পেট ব্যথা ও এসিডিটি দূর করতে সাহায্য করে এ ঔষধি। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতেও এলাচের কদর রয়েছে। হজমের সমস্যায় ভুগলে এলাচ খেয়ে যান। শ্বাসকষ্ট, হৃদরোগের জন্য উপকারী ঔষধি এলাচ। এলাচ দিয়ে চা খেলে অনেক ভালো লাগবে।

বুক জ্বালা কমিয়ে দিতে এর বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। লিভার, গলব্লাডারের সমস্যায় সমাধান আনে এ ভেষজ। ক্ষিদে না লাগলে এলাচ মুখে পুরে নিন। অথবা খাওয়ার আগে এলাচ গুঁড়ো পানি দিয়ে খেয়ে নিন। খাবারের আগ্রহ বেড়ে যাবে।

কাশি থেকে মুক্তি পেতে এ চায়ের জুড়ি মেলা ভার। মাথাব্যথা থাকলে তাও পালাবে। মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে এলাচের মতো কার্যকর ভেষজ আর নেই। একইসাথে এটি মুখ ও গলার ক্ষত সারাতে সহায়তা করে।

কিডনি থেকে বিষাক্ত উপাদান সরিয়ে দেয় এলাচ। এছাড়া প্রস্রাবে সমস্যা হয়ে থাকলে এলাচ গুঁড়ো করে নিন। এবার এ গুঁড়ো মধুর সাথে মিশিয়ে খেতে পারেন।

ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস কিংবা ফাঙ্গাসজনিত কোনো রোগ প্রতিরোধে বেছে নিতে পারেন এ অ্যান্টিসেপ্টিক। এর ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস ও অ্যাসেনশিয়াল অয়েল অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে, যা ফ্রি রেডিক্যালস থেকে ত্বককে রক্ষা করে এবং বুড়িয়ে যাওয়া কমিয়ে দেয়। রক্তের জমাটবদ্ধতা কাটিয়ে দেয় এলাচ।

তবে অনেক পুষ্টিবিদের মতে, গর্ভবতী, ব্রেস্ট ফিডিং করছেন এমন মায়েরাসহ যাদের পিত্তথলি পাথরের সমস্যায় আক্রান্ত, তাদের এলাচ এড়িয়ে চলাই ভালো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *